• শনিবার   ১৫ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

জাগ্রত জয়পুরহাট

আক্কেলপুরে দাবদাহে ধুকছে মানুষ

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২১  

প্রচন্ড গরম ও শুস্ক আবহাওয়ার কারণে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে পুড়ছে ফসলের মাঠ। ধুকছে মানুষ। পুরছে মাঠের ফসল। পাল্লাদিয়ে বাড়ছে রোগ বালাই চলতি মৌসুমে বৃষ্টিপাত না হওয়ায় বেড়ে গেছে তাপমাত্রা। সেই সাথে বইছে লু-হাওয়া। রৌদ্রের তাপে পুড়ছে মাঠের ফসল। বাড়ছে তাপ জনিত রোগ বালাই। সবচেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন শ্রমজীবি সহ শিশু ও বয়ঃবৃদ্ধরা।

সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়া অতিমারি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মানুষজন লকডাউনের মধ্যে রয়েছেন। তার উপর দাবদাহের সাথে পাল্লাদিয়ে বেড়ে চলেছে বিদুৎ্র এর লোড শেডিং। দাপদাহের প্রভাবে অনেক অভিভাবকরা তাদের সন্তানদের বাড়ি বাহিরে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষজন।
অতি হরস মাত্রায় বৃদ্ধি পাচ্ছে ডায়রিয়া, হৃদযন্ত্র, স্বাস কষ্ট, সর্দিকাশি,হিটষ্টোক, নিউমোনিয়া আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ।

এ মাসে শুধূ ডায়রিয়া ,হিটস্টোক ও স্বাস কষ্টে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় শতাধিক ব্যক্তি। আক্রান্তদের মধ্যে শিশু ও বিশেষ করে বয়ঃবৃদ্ধরা বেশি। গত এক সপ্তাহে আক্কেলপুর উপজেলা হাসপাতালে তাপদাহের প্রভাবে আক্রান্ত প্রায় দু’হাজারের বেশি লোকজন চিকিৎসার জন্য এসেছেন। তাদের মধ্যে ভর্তি হয়েছেন প্রায় ৮৭ জন। হাসপাতালের বহিঃবিভাগ সহ অন্যান্য ভাবে চিকিৎসা গ্রহন করেছেন বাকিরা।

এদের মধ্যে ডায়রিয়ায়, স্বাশকষ্ট উচ্চ রক্তচাপ ও নিউমোনিযায় আক্রান্তদের সংখ্যা অধিক। ৫০ শষ্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীদের জন্য বারান্দায় বাড়তি বেড ছাড়াও ঘরের মেঝে ও বারান্দার মেঝেতে শুয়ে চিকিৎসা সেবা নিতে দেখা গেছে।

গরমে মাঠের পটল,বেগুন, করলা, বরবটি.ঢেঁড়স, পাট,আখ,বোরো ধান সহ ঝুঁকির মুখে পড়েছে সকল ফসল। কৃষকরা অতিকষ্টে সেচ দিয়ে তাদের ফসল রক্ষার চেষ্টা করেও সফল হতে পারছেন না। বেড়েছে ভু-গর্ভস্থ্য পানির চাহিদা। হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে বাজারে সবজি সহ সকল জিনিষের দাম। নিতান্ত কাজ ছাড়া কেহ সহজে রোদের মধ্যে বের হচ্ছেন না। ভোগান্তিতে পড়েছেন শ্রমজিবীরা।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ রুহুল আমিন দাপহাহ বিষয়ে সকলের জন্য পরামর্শ দিয়ে বলেন- প্রচন্ড গরমে মানুষের গা বেশি ঘেমে যায়। শরিরে পানির ঘাটতি পড়ে। এর ফলে ডায়রিয়া, হিটষ্টোক, নিউমোনিয়া, শ্বাস কষ্ট, প্রস্বাবের জ্বালাযন্ত্রনা,পেটের পীড়া বেশি দেখা দিয়ে থাকে। এ ধরনের রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এ বিষয়ে তিনি বেশি করে বিশুদ্দ পানি পান, ডাবের পানি পান, ছায়ায় থাকা, দীর্ঘ্য সময় বাড়ির বাহিরে অপ্রয়োাজনে না যাওয়া,বাহিরে রাখা খোলা বাসি খাবার না খাওয়ার পরামর্ম প্রদান করেছেন।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট