• শনিবার   ১৫ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রচণ্ড গরমেও ঘুম হবে আরামদায়ক, জানুন সহজ ও কার্যকর উপায়

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০২১  

গরমে ঘাম হওয়া যেমন একটি সমস্যা, তেমনি গরমের কারণে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাটাও একটি বড় সমস্যা। দিনের বেলা গরম যা হোক মেনে নেয়া যায়, কিন্তু রাতের বেলা ঘুমের সময়ে এই ভ্যাপসা গরম ভীষণ অস্বস্তিকর।

এর কারণে ঠিকমতো ঘুম হয় না, বারবার ঘুম ভাঙে। ফলে সারাদিন জুড়ে শরীর লাগে খারাপ। গরমে আরাম দিতে সবার বাড়িতে এসি থাকে না। তাই জেনে নিন প্রচণ্ড গরমে একটু স্বস্তিতে ঘুমানোর সহজ ও কার্যকর কিছু টিপস-

>> ঘরে বা বারান্দায় ইনডোর প্ল্যান্ট রাখুন। এতে ঘর ঠাণ্ডা থাকে।

>> গুরুপাক খাবার খেয়ে ঘুমাতে যাবেন না। যতটা সম্ভব হালকা খাবার খান।

>> বাটি ভর্তি বরফ ফ্যানের নিচে বা টেবিল ফ্যানের সামনে রাখতে পারেন। এতে ঘর দ্রুত ঠাণ্ডা হয়।

>> গরমে শরীর জ্বালাপোড়া করলে পাতলা ভেজা গামছা শরীরে দিয়ে রাখতে পারেন, অনেকটাই আরাম মিলবে।

>> বিছানায় ১০০% সুতির চাদর বিছিয়ে নিন। বালিশের কাভারেও তাই। সিনথেটিক যেকোনো কিছু পরিহার করুন।

>> ঘুমাবার আগে স্বাভাবিক তাপমাত্রার এক গ্লাস পানি খেতে ভুলবেন না। পানি ভেতর থেকে শরীর শীতল রাখবে।

>> ঘুমাতে যাবার আগে অবশ্যই গা ধুয়ে বা ভেজা তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। ঘেমে যাওয়া শরীরে ঘুমাতে গেলে গরম অনেকটাই বেশি লাগবে। তবে চুল ভেজাবেন না। ভেজা চুলে গরম লাগলে খুব অস্বস্তি হবে। গোসল করে বা শরীর মুছে ফ্যানের বাতাসে নিজেকে শুকিয়ে নিন।  

>> পাতলা সুতি পোশাক পরিধান করুন। পাতলা ম্যাক্সি বা নাইটি, পাতলা ট্রাউজার বা লুঙ্গি ইত্যাদি। সুতির পোশাকে গরম অনেক কম অনুভুত হয়।

>> ঘুমাবার কিছুক্ষণ আগে থেকেই দরজা-জানালা খুলে ও পর্দা সরিয়ে ফ্যান ফুল স্পিডে চালিয়ে দিন। এতে ঘর শীতল হয়ে আসবে। পরে পর্দা টেনে ঘুমাতে পারেন।

>> জানালার ধারে একটি টেবিল ফ্যান চালু করে রাখতে পারেন। টেবিল ফ্যানকে জানালার দিকে পেছন ফিরিয়ে সেট করবেন। এতে ঘর অনেকটাই ঠাণ্ডা হয়।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট