• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৮ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

রাইডে ত্রুটি, মাথা নিচু করে শূন্যে ঝুলে রইলেন পর্যটকরা!

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২৩  

বিনোদন পার্কে গিয়ে বিভিন্ন রকম জয়রাইডে চাপতে ভালবাসেন অনেকেই। কিন্তু চীনের কিছু বাসিন্দার কাছে সেই জয়রাইডে চাপার অভিজ্ঞতা হয়তো সারা জীবনই আতঙ্ক হয়ে রবে। যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে বিশালাকার পেন্ডুলাম রাইডে মাথা নিচে, পা উপরে থাকা অবস্থায় অন্তত দশ মিনিট ধরে শূন্যে ঝুলে ছিলেন তারা। সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে চীনের আনহুই প্রদেশের ফুয়াং এলাকার একটি বিনোদন পার্কে। গত ১৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার পার্কের একটি পেন্ডুলাম রাইডে উঠেছিলেন উৎসাহী মানুষজন। এই রাইডটির বিশেষত্ব হল, ঘড়ির পেন্ডুলামের মতোই ডানদিক-বাঁদিকে করে দুলতে দুলতে গতি বাড়িয়ে সেটি পৌঁছে যায় মাটির সমকোণে, আকাশের মধ্যিখানে। পেন্ডুলামের নীচের অংশে সেফটি বেল্ট দিয়ে আটকানো থাকেন পর্যটকরা। যখন সেটি দুলতে দুলতে সর্বোচ্চ উচ্চতায় গিয়ে পৌঁছায়, তখন মাথা নিচে, পা উপরের দিকে করে ঝুলতে থাকেন পর্যটকরা।

তবে কোনো সমস্যা না থাকলে এটি মাত্র কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী হয়। ফের দ্রুতগতিতে পেন্ডুলাম নেমে আসে নীচে, তখন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন পর্যটকরা। 

দুর্বলচিত্ত মানুষের জন্য এই রাইড নয়। যথেষ্ট মনের জোর না থাকলে এই রাইডে ওঠা তো দূর, তা ভাবনাতেও আনেন না কেউ। বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ উচ্চতায় ওঠার পর আচমকাই বিকল হয়ে যায় রাইডটি। ফলে মাটি থেকে বহু উঁচুতে মাথা নীচের দিকে করে শুন্যে ঝুলে থাকেন রাইডে ওঠা দর্শনার্থীরা।

জানা গেছে, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণেই এমন বিপদ ঘটেছিল, যার জন্য অন্তত ১০ মিনিট শূন্যে ঝুলতে বাধ্য হন পর্যটকরা। শেষমেষ পার্কের কর্মীরা রাইডের উপরে উঠে সেটিকে ঠিক করেন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর নীচে নেমে আসেন রাইডে চড়া মানুষজন। 

এই ঘটনায় বিনোদন পার্কের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওজন সংক্রান্ত একটি সমস্যার কারণেই আচমকা বিকল হয়ে গিয়েছিল রাইডটি। অনুমান করা হচ্ছে, যত সংখ্যক মানুষ ওঠার কথা, তার চেয়ে বেশি মানুষ সেদিন ওই রাইডে উঠেছিলেন। সেই কারণেই এমন বিপর্যয় ঘটে।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এই ঘটনায় পার্কের তরফে পর্যটকদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, যারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন, তাদের চিকিৎসার খরচ বহন করারও প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট