• সোমবার ০২ অক্টোবর ২০২৩ ||

  • আশ্বিন ১৬ ১৪৩০

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

জাগ্রত জয়পুরহাট

মৃত বন্ধুর চিতায় ঝাঁপ, প্রাণ গেল অপর বন্ধুর

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২৩  

বন্ধু হারানোর যন্ত্রণা সহ্য করা যে কারোর কাছেই খুবই কষ্টকর। এ যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে এক ব্যক্তি ঝাঁপ দিলেন বন্ধুর চিতায়! ঘটনা ভারতের উত্তর প্রদেশের ফিরোজাবাদের।

শনিবার মৃত্যু হয়েছে বছর ৪০ এর অশোক কুমারের। তার ছোট্টবেলার বন্ধু গৌরব সিং অশোকের মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়েছিলেন। ফিরোজাবাদের মাদিয়া নাদিয়া গ্রামে যখন অশোকের দেহ চিতায় জ্বলছে, তখন আচমকা সেখানে ঝাঁপ দিয়ে দেন গৌরব। সবাই বাঁচাতে যান গৌরবকে। তখনই দেখা যায়, গৌরবের দেহ প্রায় ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য গৌরবকে নিয়ে আগ্রায় নেওয়া যাওয়া হচ্ছিল। পথেই জীবনের সঙ্গে সব লড়াই শেষ করে মৃত্যু হয় গৌরবের।

পুলিশ বলছে, অশোকের দেহ যখন চিতায় ভস্মিভূত হচ্ছিল, তখন অন্তিম লগ্নে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধব ধীরে ধীরে সবাই সেখান থেকে চলে যেতে থাকেন। কিন্তু সেখানে ছিলেন অশোকের বন্ধু গৌরব। তখনই অশোকের চিতায় ঝাঁপ দেন গৌরব। ততক্ষণে সেখানে লোকসংখ্যা কম থাকায় অনেকের পৌঁছতে দেরি হয়। ফলে গৌরবকে বের করে আনতে দেরি হয়। তার ফলেই ৯০ শতাংশ দেহ পুড়ে যায় গৌরবের। 

গৌরবের পরিবার জানায়, দুজনেই ছোট থেকে স্কুলের বন্ধু। দুজনের বিয়েও হয়েছে একই দিনে। গৌরব মঞ্জিরা বাজাতে ভালোবাসতেন আর অশোক বাজাতেন ঢোল। একসঙ্গে তাদের বাজনা বাজাতে অনেক সময়ই বহু বিয়ে বাড়ি থেকে ডাকা হতো।  উল্লেখ্য, অশোকের মৃত্যু হয়েছে ক্যান্সারে। আর তার মৃত্যুর খবর সহ্য করতে না পেরে গৌরবও ঝাঁপ দেন অশোকের চিতায়।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট