মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ || ১০ আষাঢ় ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত : ১২:৪৪, ২১ মে ২০২৪

হারিয়ে যাওয়া ঘোড়া পেয়ে বেজায় খুশি দিনমজুর হাবিবুর

হারিয়ে যাওয়া ঘোড়া পেয়ে বেজায় খুশি দিনমজুর হাবিবুর
সংগৃহীত

রাতে বাড়ির পাশে গাছের সঙ্গে ঘোড়াটি বেঁধে রেখেছিলেন দিনমজুর হাবিবুর রহমান (৪০)। কিন্তু দড়ি ছিঁড়ে ঘোড়াটি হারিয়ে যায়। রোজগারের একমাত্র সম্বল ঘোড়াটি হারিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েন হাবিবুর। হারিয়ে যাওয়ার পাঁচ দিন পর তিনি ঘোড়াটি খুঁজে পেয়েছেন।

গতকাল শনিবার রাতে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে একটি বাজার থেকে ঘোড়াটি নিয়ে তিনি বাড়ি ফিরেছেন। হাবিবুর রহমানের বাড়ি যশোরের অভয়নগর উপজেলার বাঘুটিয়া গ্রামে।

হারিয়ে যাওয়া ঘোড়াটি পেয়ে বেজায় খুশি হাবিবুর। তিনি বলেন, ‘সোমবার রাতে ঘোড়াটি হারিয়ে যাওয়ার পর থেকে সাইকেলে করে পাগলের মতো গ্রামের পর গ্রাম ঘোড়াটি খুঁজেছি। ঘোড়াটির শারীরিক বর্ণনা দিয়ে এমন ঘোড়া দেখেছেন কি না, মানুষের কাছে জানতে চেয়েছি। অনেকের কাছে ফোন নম্বর দিয়ে এমন ঘোড়া দেখলে কল দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছি।’

হাবিবুর জানান, শনিবার হঠাৎ একটি ফোন আসে। বলা হয়, উপজেলার পাথালিয়া গ্রামের মাছের বাজারের পাশে এক চায়ের দোকানদার কয়েক দিন ধরে একটি ঘোড়া বেঁধে রেখেছেন। সেখানে গিয়ে দেখেন, ঘোড়াটি তাঁর। কয়েক দিন ঠিকমতো খেতে না পেরে ঘোড়াটি কাবু হয়ে গেছে। ঘোড়া ফিরে পাওয়ার আনন্দে তিনি মিষ্টি খাওয়ার জন্য চায়ের দোকানদারকে ৫০০ টাকা দিয়েছেন।

ঘোড়ার গাড়িতে ধান-চাল পরিবহন ও জমিতে দিনমজুরের কাজ করেন হাবিবুর রহমান। ওই আয় দিয়েই তাঁর পাঁচ সদস্যের সংসার চলে। সম্প্রতি ঘোড়াটি গর্ভবতী হয়ে গেলে বিপাকে পড়েন তিনি। বাধ্য হয়ে ২০ দিন আগে ৬০ হাজার টাকা ধার করে একটি ঘোড়া কেনেন। ওই ঘোড়া দিয়ে গাড়িতে বোরো ধান পরিবহন করছিলেন তিনি। গত সোমবার রাতে বাড়ির পাশে গাছের সঙ্গে ঘোড়াটি বেঁধে রেখেছিলেন। ওই দিন সন্ধ্যা থেকে শুরু হয়ে রাত পর্যন্ত ঝড়বৃষ্টি হয়। পরে ঘরের বাইরে এসে দেখেন, গাছে বাঁধা দড়ির কিছু অংশ পড়ে আছে। কিন্তু ঘোড়া নেই। দড়ি ছিঁড়ে ঘোড়াটি হারিয়ে যায়।

গত বৃহস্পতিবার প্রথম আলোর অনলাইনে ‘আয়ের একমাত্র সম্বল ঘোড়াটি হারিয়ে দিশাহারা দিনমজুর হাবিবুর’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়।

সূত্র: প্রথম আলো

সর্বশেষ

সর্বশেষ