শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪ || ২৯ চৈত্র ১৪৩০

প্রকাশিত: ১৬:২৯, ২ মার্চ ২০২৪

আহতদের চিকিৎসার দায়িত্ব সরকারের

আহতদের চিকিৎসার দায়িত্ব সরকারের
সংগৃহীত

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেছেন, রাজধানীর বেইলি রোডে গ্রিন কোজি কটেজ ভবনে অগ্নিকাণ্ডে নারী-শিশুসহ এখন পর্যন্ত ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ১২ জনের কেউই এখনো শঙ্কামুক্ত নন। আহতদের খোঁজ রাখছেন প্রধানমন্ত্রী। তাদের চিকিৎসার সব দায়িত্ব সরকারের।

গতকাল অগ্নিদগ্ধ রোগীদের দেখতে এসে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ১০টি ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৩৬টি লাশ এসেছে। এ দুই হাসপাতালে আরও ১২ জন চিকিৎসাধীন। তারা কেউই শঙ্কামুক্ত নন। আরও পাঁচটি লাশ আছে যেগুলো শনাক্ত করা যায়নি।

তিনি বলেন, ‘কার্বন মনোক্সাইড বিষক্রিয়ায় মারা গেছেন তারা। একটা বদ্ধ ঘরে থেকে প্রবেশ করতে না পারায় ধোঁয়া শ্বাসনালিতে চলে যায়। মারা যাওয়া প্রত্যেকেরই এমনটা হয়েছে। যাদের বেশি হয়েছে, দুঃখজনকভাবে তারা বাঁচতে পারেননি। এখনো যারা চিকিৎসাধীন, কেউই শঙ্কামুক্ত নন। আমরা সর্বোচ্চ চিকিৎসা দিয়ে তাদের জন্য চেষ্টা করছি। আমি এখন আবার চিকিৎসকদের নিয়ে বসব। পরিকল্পনা করব কীভাবে কী করা যায়।’

সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ

শিরোনাম

আয়ারল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দনসুইজারল্যান্ডে স্কলারশিপ পাওয়ার উপায় কিঈদের দিন ৩ হাসপাতাল পরিদর্শন স্বাস্থ্যমন্ত্রীরঈদের জামাতে নামাজরত অবস্থায় ভাইয়ের মৃত্যু, খবর শুনে মারা গেলেন বোনওসদরঘাটে শেষ বিল্লালের পুরো পরিবারবৈসাবি উৎসবের আমেজে ভাসছে ৩ পার্বত্য জেলাব্যাংক ডাকাতি থেকে বাঁচতে জয়পুরহাটে কড়া নিরাপত্তাএলাকায় মসজিদ ছিল না, জমি কিনে মসজিদ বানালেন সবজি বিক্রেতাবায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাতে মুসল্লিদের ঢলআজ ঈদ, মুসলমানদের ঘরে আনন্দের বন্যাভারতে পাচারের সময় কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধারজাহাজে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন জিম্মি নাবিকরা