মঙ্গলবার   ২৮ মে ২০২৪ || ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ০৪:৫৪, ২৮ মার্চ ২০২৪

চীনের সাথে রাজনৈতিক ও অফিসিয়াল যোগাযোগ বাড়াতে প্রস্তুত বাংলাদেশ

চীনের সাথে রাজনৈতিক ও অফিসিয়াল যোগাযোগ বাড়াতে প্রস্তুত বাংলাদেশ
সংগৃহীত

চীনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দিন বলেছেন, দুই দেশের জনগণের স্বার্থে গুরুত্বপূর্ণ বহুমাত্রিক সম্পর্ককে আরো জোরদার করতে ঢাকা রাজনৈতিক ও সরকারি পর্যায়ে বেইজিংয়ের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের আলাপচারিতার জন্য প্রস্তুত।

মঙ্গলবার বেইজিংয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দিন এ কথা বলেন। তিনি বলেন, চীন বাংলাদেশের একটি নির্ভরযোগ্য ও গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

রাষ্ট্রদূত জসিম উদ্দিন বলেন, "চীন কেবল আমাদের বৃহত্তম বাণিজ্য অংশীদারই নয়। এটি অন্যান্য বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলির সাথে আমাদের জাতীয় উন্নয়ন বিবরণীর একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে।"

তিনি বলেন, বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ বিআরআই-এর অধীনে বিশ্বজুড়ে দৃশ্যমান এক দশক কাজ শেষ করার জন্য চীনের প্রশংসা করে।

তিনি বলেন, "আমরা আরো চীনা বিনিয়োগকে স্বাগত জানাতে উন্মুখ যা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার রূপকল্প বাস্তবায়নে সহায়তা করতে পারে। 

রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, উভয় দেশের স্বার্থে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি চীনের সাথে সহযোগিতার ক্ষেত্রগুলি অন্বেষণ করতে চায়। 

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্র বিষয়ক ভাইস মিনিস্টার চেন জিয়াওডং।

দুই দেশের নেতাদের মধ্যে যে গুরুত্বপূর্ণ সাধারণ সমঝোতা হয়েছে তা বাস্তবায়ন করতে, রাজনৈতিক পারস্পরিক বিশ্বাসকে আরো গভীর করতে এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিনিময় ও সহযোগিতা সম্প্রসারণের জন্য তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে বেইজিংয়ের প্রস্তুতির ওপর জোর দেন।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়