• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

পদ্মার চরে গার্ডলিং পদ্ধতিতে শত শত বিঘা জমিতে বরই চাষ

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০২২  

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার পদ্মার চরে গার্ডলিং পদ্ধতিতে বরই চাষ করা হয়েছে। এ পদ্ধতি ব্যবহারের ফলে বাগানের প্রতিটি গাছে প্রচুর পরিমান বরই ধরেছে। প্রতিটি গাছে থোকায় থোকায় বরই ও ফুলে সবার নজর কাড়ছে। উপজেলা সদর থেকে ৮ কিলোমিটার পূর্বদিকে চকরাজাপুর ইউনিয়নের পদ্মার মধ্যে নিচপলাশী চরের শত শত বিঘা বরই জমিতে করা হয়েছে গার্ডলিং পদ্ধতি।

জানা যায়, উপজেলার সদর থেকে পূর্ব দিকে পদ্মা নদীর নালার ধার দিয়ে যেতে হয় খানপুরবাজার। খানপুরবাজারে পূর্বদিকে গড়গড়ি ইউনিয়নের খানপুর আশ্রয়ণ প্রকল্প। এই আশ্রয়ণ প্রকল্পের পাশে চকরাজাপুর ইউনিয়নের নিচপলাশী পদ্মা নদীর মধ্যে শত শত বিঘা বরইয়ের বাগান। এ বাগানে ধরে আছে থোকায় থোকায় বরই। এই চর বর্ষা মৌসুমে পানিতে একাকার হয়ে যায়। এ সময় চেনার উপায় থাকে না। তেমনি বরই চাষে প্রতিটি বাগান একেকটির সঙ্গে মিশে একাকার।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, কৃষকদের উদ্ভাবিত বরই চাষ পদ্ধতিতে এখানে এসেছে ব্যাপক সাফল্য। এ পদ্ধতির কারণে প্রতিটি গাছে বরই যেমন আকারে বড় হয়, তেমনি খেতেও সুস্বাদু। ফলে অন্যান্য এলাকার বরইয়ের চেয়ে এই বরইয়ের চাহিদাও ব্যাপক। পদ্মার চরের বরই সরবরাহ হয় ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, সিলেট, ফেনি, ময়মনসিংহসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট