• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

আগাম শিম চাষে স্বাবলম্বী আতোয়ার রহমান!

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২২  

সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আতোয়ার রহমান শিমের আগাম চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন। প্রতিবছর তিনি আগাম শিমসহ অন্যান্য সবজির আগাম চাষ করে থাকেন। আগাম সবজির বাজারদর ভালো থাকায় প্রতি বছর সবজি চাষে করে তিনি কয়েকগুন লাভ করেন। সবজি চাষে তার এই সফলতা দেখে একই গ্রামের আরো ৩০-৪০ জন কৃষক আগাম সবজি চাষে আগ্রহী হয়েছেন।

জানা যায়, আতোয়ার রহমান সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ ধুমাইটারী গ্রামের বাসিন্দা। বিগত ১০ বছর যাবত তিনি শিমসহ অন্যান্য সবজির চাষাবাদ করে আসছেন। সবজি চাষ করেই তিনি স্বাবলম্বী হয়েছেন। সবজি চাষে তাকে সফল হতে দেখে অনেক কৃষক তার কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে সবজি চাষ শুরু করেছেন।

আতোয়ার রহমান বলেন, আমার ৩৫ শতক জমিতে শীতকালীন শিমের আগাম চাষ করেছি। প্রতি বছরই আমি আগাম সিম, কফি, শশা, করলা, লাউ, কুমড়াসহ বিভিন্ন শাক সবজি চাষ করে থাকি। এবছর শিমের ভলো ফলন হয়েছে। শিম বিক্রি শুরু করেছি। শিমের বাজারদর ভালো। প্রতিকেজি শিম ৬০-৮০ টাকা দরে বিক্রি করছি। আশা করছি সাড়ে ৩ থেকে ৪ লাখ টাকার শিম বিক্রি করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, চাষাবাদের উপকরণ ও দিন মজুরের মজুরী বাড়ছে। তাই আগের তুলনায় লাভের পরিমাণ কমে যাচ্ছে। একই গ্রামের আলম মিয়া বলেন, আতোয়ার রহমানের সবজি চাষ দেখে আমিও ২ বিঘা জমিতে শীতকালীন সবজির আগাম চাষ শুরু করেছি।

সুন্দরগঞ্জ বাজারের কাচাঁমাল ব্যবসায়ী বিপ্লব মিয়া বলেন, বাজারে আগাম সবজির দাম বেশি। কৃষকরা প্রতিকেজি শিম ৬০-৭০ টাকায় বিক্রি করতে পারছে। আর খুচরা বাজারে ১১০-১২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পুরোপুরি শীত পড়লে এই শিমের দাম কমে ৩০ টাকায় নেমে আসবে। তাই আগাম সবজির দাম বেশি।

উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রাশিদুল কবির বলেন, আগাম সবজি চাষ অনেক লাভজনক। বাজারে আগাম সবজির দাম ভালো থাকে। আর এই উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপকভাবে সবজির আগাম চাষ হয়। আমরা কৃষকদের সবধরনের পরামর্শ ও সহযোগীতা দিচ্ছি।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট