• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৮ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

তেলাপিয়া মাছ কি সত্যিই স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২৩  

তেলাপিয়া মাছ খেতে কমবেশি সবাই পছন্দ করেন। আবার অনেকেই এ মাছ দেখলেও নাক সিঁটকান। অনেকেই বলেন, তেলাপিয়া মাছ স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এই মাছকে গারবেজ/ট্র্যাশ ফিশ বা আবর্জনা মাছ বলে ডাকেন, তবে কেন জানেন? এর প্রথম কারণ হলো, এটি শেওলা ও বিভিন্ন উচ্ছিষ্ট খাবার খেয়ে বেঁচে থাকে। সঠিকভাবে চাষ করলে তেলাপিয়া খাওয়া স্বাস্থ্যকর হতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, তেলাপিয়ায় প্রোটিন, পটাশিয়াম, ভিটামিন বি-১২, ফসফরাসের মতো একাধিক অপরিহার্য উপাদান থাকে। জানা গেছে, বিশ্বের প্রায় ১২০টি দেশে সবচেয়ে বেশি চাষ করা হয় এই মাছ। তবে বেশিরভাগ অসাধু ব্যবসায়ীরা এই মাছকে অস্বাস্থ্যকর অবস্থায় বেড়ে তুলছে। ফলে পুষ্টির পরবর্তে এই মাছ খেলে শরীরে ঢুকছে নানা ক্ষতিকর পদার্থ।

বর্তমানে নানা ধরনের রাসায়নিক দিয়ে চাষ করা তেলাপিয়া মাছ। এমনকি নানা দূষিত জিনিস খাবার হিসেবে দেওয়ার হয় মাছকে। একটি রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, তেলাপিয়া উৎপাদনে ব্যবহৃত মাছেদের খাদ্য হিসেবে হাঁস, শূকর বা মুরগির দেহাবশেষ থাকে।

তাই বেশিরভাগ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, এই মাছ খাওয়ার জন্য নিরাপদ নয়। যে রাসায়নিক ব্যবহার করা হয় তা ক্যানসারের মতো ব্যাধির ঝুঁকি অনেক গুণে বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই নিরাপদ নয় বলে মনে করা হয়।

বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে এই মাছে ডিবিউটিলিন ও ডাইঅক্সিন নামক মারাত্মক ক্ষতিকর রাসায়নিকের উপস্থিতি মিলেছে। ডিবিউটিলিন হলো এমন একটি রাসায়নিক, যা প্লাস্টিকের বিভিন্ন জিনিস তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

এটি মানবদেহে প্রবেশ করলে স্থুলতা, হাঁপানি, অ্যালার্জি’সহ নানা ধরনের বিপাকীয় রোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তবে ডিবিউটিলিনের চেয়েও ক্ষতিকর ডাইঅক্সিন। এটি শরীরে প্রবেশ করলে ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট