• রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ২ ১৪২৮

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাগ্রত জয়পুরহাট

লাল চালের ভাত, নাকি সাদা ভাত, কোনটা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট ২০২১  

ভাত ছাড়া বাঙালি অচল, একথা বললে বোধ হয় বাড়িয়ে বলা হবে না। কারণ সারা দিনে এটা-সেটা যাই খান না কেন, ভাত না খেলে যেনো মনে হয়, কিছুই খাওয়া হয়নি। অনেকেই বলেন, ভাত যদি খেতেই হয়, তবে লাল চালের ভাত খাবেন।

একটা সময় ছিল যখন লাল চাল কেবল নিম্নআয়ের মানুষের খাবারের তালিকায় ছিল। আর এই লাল চাল খেয়েই নিম্ন আয়ের লোকজন সুস্থ-স্বাভাবিক, বলা চলে নীরোগ জীবনযাপন করতেন। সময়ের পালা বদলে এখন মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্তরা অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন। তাই স্বাস্থ্য সচেতনতার অংশ হিসাবে অনেকেই খাবার তালিকায় লাল চাল যোগ করছেন। তাহলে লাল চাল কি সাদা চালের চেয়ে ভালো, কেন খাবেন লাল চাল, জেনে নিন

লাল চালের ভাত ও সাদা চালের ভাতে যত তফাৎ

লাল চালে থায়ামিন ০.৬ মিলি গ্রাম, সাদা চালে থায়ামিন ০.১ মিলি গ্রাম। লাল চালে রিবোফ্লাভিন ০.১৪ মিলি গ্রাম, সাদা চালে রিবোফ্লাভিন ০.০৬ মিলি গ্রাম।লাল চালে নায়াসিন ৫ মিলি গ্রাম, সাদা চালে ২ মিলি গ্রাম। লাল চালে ভিটামিন বি৫ ১.৩ মিলি গ্রাম আর সাদা চালে ০.৭ মিলি গ্রাম।সাদা চালে আয়রন ২.২ মিলি গ্রাম, লাল চালে আয়রন ৪.৭ মিলি গ্রাম।

সাদা চালে সোডিয়াম ৬.৫ মিলি গ্রাম, ১৩ মিলি গ্রাম। লাল চালে ম্যাঙ্গানিজ ৩.২ মিলি গ্রাম আর সাদাতে ২.৫ মিলি গ্রাম। লাল চালে ম্যাগনেশিয়াম ১৩৩ মিলি গ্রাম আর সাদাতে ১২ মিলি গ্রাম। পটাশিয়াম ৩২০ মিলি গ্রাম হচ্ছে লালে, সাদাতে ১২০ মিলি গ্রাম। ভিটামিন-ই ২ মিলি গ্রাম লাল চালের ভাতে, সাদাতে০.৩ মিলি গ্রাম। এবং সাদা চালের ভাতে ৭ মাইক্রো গ্রাম সেলেনিয়াম থাকে। পক্ষান্তরে লাল চালের ভাতে সেলেনিয়াম থাকে ৭৮ মাইক্রো গ্রাম।

কেন খাবেন লাল চাল

লাল চালে প্রচুর অ্যানথোসায়ানিন নামের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। যা শরীরে প্রদাহ ও অ্যালার্জি কমায়। পাশাপাশি ক্যানসারের ঝুঁকি এবং ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাই যারা ওজন কমানোর চেষ্টা করছেন, তাদের জন্যও সাদা চালের চেয়ে লাল চালের ভাতই ভালো।লাল চালে রয়েছে সেলেনিয়াম। এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।আর পলিশ করা সাদা চালে খুবই সামান্য পরিমাণে সেলেনিয়াম থাকে।লাল চালে যে পরিমাণ আয়রন রয়েছে তা রক্ত শূন্যতায় ভোগা মানুষের জন্য ম্যাজিকের মতো কাজ করে। লাল চাল ডায়াবেটিসের রোগীদের জন্যও খুব উপকারী।হাড়ের ক্ষয় প্রতিরোধ করে সাহায্য করে লাল চাল। এ জন্য আবার তিনবেলা প্লেট ভরে লাল চালের ভাত খেলে কিন্তু হবে না। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যেটুকু সাদা ভাত খাওয়া প্রয়োজন সেটুকু লাল চালের ভাত খেতে পারেন।

যে সতর্কতা অবলম্বন করবেন

লাল চালে সামান্য পরিমাণে ক্ষতিকর ফাইটিক অ্যাসিড আছে। তাই লাল চালের ভাত খাওয়ার সময় বেশি আয়রন ও ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার না খাওয়াই ভালো। কারণ এতে হজমে সমস্যা হতে পারে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট