• বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

বুড়ো আঙুলের এই পরীক্ষায় বুঝুন হৃদরোগের আশঙ্কা আছে কি না

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২  

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পরিমাণ আজকাল অনেক বেড়ে গিয়েছে। অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, ভুল খাদ্যাভ্যাস, শরীরচর্চার অভাবের কারণেই হৃদপিণ্ডজনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।  হৃদপিণ্ড থেকে পাকস্থলী হয়ে যে ধমনীটি শরীরের নিম্নভাগের দিকে নেমে গিয়েছে, তার মাঝ বরাবর একটি ফোলা অংশ রয়েছে। এটি স্বাভাবিক বিষয়। কিন্তু, কারো কারো ক্ষেত্রে এই অংশটি বেশি মাত্রায় ফুলতে থাকে। এমনকি একসময় তা ফেটেও যেতে পারে। যা হৃদপিণ্ডের সমস্যার কারণ হতে পারে। দ্রুত চিকিৎসা গ্রহণ না করালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রোগীর মৃত্যুও হতে পারে।

এই সমস্যাটিকে চিকিৎসাবিদ্যার ভাষায় বলা হয়ে ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’। প্রাথমিক পর্যায়ে এটি টের পাওয়া যায় না। আর যখন বোঝা যায় তখন রোগী চলে যায় মৃত্যুর কাছাকাছি। প্রায় ৮০ শতাংশ রোগীরই মৃত্যু হয় এই অসুখে। 

সহজ একটি উপায়ে এই সমস্যা আগে থেকে টের পাওয়া সম্ভব। বুড়ো আঙুলের সাধারণ একটি পরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হতে পারেন আপনার হৃদরোগের ঝুঁকি রয়েছে কি না।

সম্প্রতি আমেরিকার ‘জার্নাল অব কার্ডিয়োলজি’-তে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে এমনই দাবি করেছেন চিকিৎসকরা। ৩০৫ জন রোগীর এই পরীক্ষা করে তারা দেখেছেন, ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর সমস্যা অনেক আগে থেকে টের পাওয়া সম্ভব।

কীভাবে পরীক্ষাটি করবেন?

বাঁ হাতের বুড়ো আঙুল তালু বরাবর প্রসারিত করুন। যতটা পারা যায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। যদি দেখেন, আঙুল তালুর ভেতরেই রয়েছে তবে উদ্বেগের কারণ নেই। কিন্তু বুড়ো আঙুলের শীর্ষভাগ যদি তালুর সীমানা অতিক্রম করে তবে বুঝবেন, আপনার ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’-এর সমস্যা থাকলেও থাকতে পারে।

কেন এমনটা হয়? 

যারা ‘অ্যাবডোমিনাল এয়রটিক অ্যানিউরিজম’ সমস্যায় ভোগেন, তাদের পেশি এবং হাড়ের সংযোগ স্থলগুলি শিথিল হয়ে যায়। ফলে বুড়ো আঙুলটিকে তালু বরাবর টেনে অনেক দূর পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া যায়। এই কাজ করতে কোনো ব্যথা বা অস্বস্তি হয় না। বুড়ো আঙুলের এই পরীক্ষাটি আপনাকে শরীরের অসুস্থতা সম্পর্কে পূর্বাভাস দিতে পারবে। 

ধূমপান এবং মানসিক চাপ ত্যাগ করতে পারলে, এই রোগের আশঙ্কা অনেক কমানো যেতে পারে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট