• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

সারা বছরের জন্য সংরক্ষণ করুন মশলা

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০২২  

হলুদ, মরিচ, ধনে ছাড়া আমাদের রান্নাঘর চিন্তাই করা যায় না। রান্নায় প্রচুর ব্যবহার করা হয় বলে আমরা বেশি বেশি করে কিনেও রাখি মশলার গুঁড়া। বিপদ ঘটে সেখানেই। পরে দেখা যায় মশলায় দলা দলা পেকে গেছে অথবা দেখা যায় ঘ্রাণ কমে গেছে। বাজার থেকে কিনে বা ঘরেই তৈরি করা হয় এই মশলা। যাইকোন যেখান থেকেই আসুক মশলা আপনাকে যেটা করতে হবে তা হলো, সঠিকভাবে সংরক্ষণ। চলুন এক নজরে দেখি আসি। 

মশলা সংরক্ষণ 

> মশলা যদি বাজার থেকে কেনেন তাহলে গুণমান বজায় রাখতে মশলাটি যে প্যাকেটে এসেছে সেই প্যাকেটে সংরক্ষণ করুন।

> এক সাথে প্রচুর মশলা কেনা বা বাড়িতে তৈরি করা থেকে এড়িয়ে চলুন। সংরক্ষেণের সমস্যার কারণে নষ্ট হয়ে যেতে পারে। অল্প করে বানালে সতেজও থাকে।

> যে পাত্রে মশলা রাখবেন সেটা অবশ্যই বায়ুরোধী হতে হবে। খেয়াল রাখুন  মশলাগুলো যেন বাতাস বা আর্দ্রতা না পায়। কাচের জার বা পাত্রে রাখলে ভালো।

> মশলা শুষ্ক জায়গায় রাখতে হবে যাতে সরাসরি সূর্যের আলোতে মশলার রং যেন বিবর্ণ না হয়।

> মশলা থেকে আলাদা গন্ধ বের হলে বা পোকামাকড় আসতে শুরু করলে তা ফেলে দেওয়া উচিত।

> মসলা কখনো চুলার আশেপাশে রাখবেন না। অতিরিক্ত তাপে মসলার গুণ ও স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়।

> বাটা মশলা ডিপ ফ্রিজে এবং মুখবন্ধ বাটিতে রাখতে হবে।

> প্লাস্টিকের ব্যাগে বাটা বা গুঁড়া মশলা রাখা ঠিক না ।

> আঙুল অথবা ভেজা চামচ ব্যবহার করবেন না গুঁড়া মশলার ক্ষেত্রে।

> শুষ্ক স্থানে রাখুন ।

> গরম মশলা ও জিরা রোদের মধ্যে রাখবেন না। এত মশলার ঘ্রাণ নষ্ট হয়ে যায়।

সূত্র : এই সময়।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট