মঙ্গলবার   ২৮ মে ২০২৪ || ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৭:০৬, ২৩ এপ্রিল ২০২৪

সানস্ক্রিন লাগালেই মুখ ঘামতে শুরু করে?

সানস্ক্রিন লাগালেই মুখ ঘামতে শুরু করে?
সংগৃহীত

তীব্র দাবদাহে শরীরের পাশাপাশি ত্বকেও প্রভাব ফেলছে। কাঠফাটা রোদে বেরোলে ত্বক যেন পুড়ে যাচ্ছে। এ আবহাওয়ায় সানস্ক্রিন ছাড়া বাইরে বেরোনো মানে ত্বকের বিপদ ডেকে আনা। যদিও ত্বকের সুরক্ষায় সারা বছরই সানস্ক্রিন লাগানো উচিত। অনেকেই আছেন যাদের ত্বকে সানস্ক্রিন লাগানো মাত্রই ত্বক ঘামতে থাকে। এ কারণে কেউ কেউ সানস্ক্রিন এড়িয়ে চলেন। কিন্তু এই রোদে সানস্ক্রিন না মাখলে চলবে না। সেক্ষেত্রে কিছু বিষয় মাথায় রাখুন। যেমন-

১. সানস্ক্রিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে এসপিএফের মাত্রা দেখাটা জরুরি। তৈলাক্ত ও স্পর্শকাতর ত্বক হলে ৩০ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন মাখুন। ত্বকের ধরন স্বাভাবিক হলে এসপিএফ ৪০-ই যথেষ্ট। কিন্তু এখন রোদের তেজ মারাত্মক হওয়ায় ট্যান এড়াতে ৫০ এসপিএফ যুক্ত সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

২. সব সময় ত্বকের ধরন অনুযায়ী সানস্ক্রিন বেছে নেওয়া জরুরি। আপনার ত্বক স্বাভাবিক হলে যে কোনও ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। অন্যদিকে ত্বক তৈলাক্ত ও স্পর্শকাতর হলে জেল, স্প্রে, স্টিক ইত্যাদি ধরনের সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন।

৩. টিন্টেড সানস্ক্রিন ব্যবহার করলে ঘাম কম হবে। নন-কমেডোজেনিক সানস্ক্রিন এড়িয়ে চলুন। এতে ঘাম ও ব্রণর সমস্যা বাড়তে পারে।

৪. প্রতিবার সানস্ক্রিন লাগানোর আগে তাতে পানি মিশিয়ে নিন। এতে সানস্ক্রিনের ঘনত্ব পাতলা হবে। এরপর সানস্ক্রিন মাখলে পণ্যটি রোমকূপের ভিতর ভালো করে প্রবেশ করে। এর ফলে ত্বক শীতল থাকে এবং ঘাম কম হয়।

৫. রোদে বেরোনোর কমপক্ষে ২০ মিনিট আগে ত্বকে সানস্ক্রিন মাখার ছেস্টা করুন। দীর্ঘক্ষণ রোদে থাকলে ২-৩ ঘন্টা পর পর সানস্ক্রিন মাখুন। এতে ত্বক ক্ষতিকারক ইউভি রশ্মির হাত থেকে সুরক্ষিত থাকবে।

সূত্র: সমকাল

সর্বশেষ

জনপ্রিয়