মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ || ১০ আষাঢ় ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত : ১২:২৭, ২২ মে ২০২৪

যেসব অভ্যাস বাড়িয়ে দেয় মাইগ্রেনের ব্যথা

যেসব অভ্যাস বাড়িয়ে দেয় মাইগ্রেনের ব্যথা
সংগৃহীত

অনেকের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে। মাইগ্রেনের সমস্যা হলে- মাথা যন্ত্রণার সঙ্গে গা গোলানো কিংবা মাথার এক পাশ থেকে শুরু হয়ে গোটা মাথায় ছড়িয়ে পড়ে অসহ্য ব্যথা। কারও কারও হালকা জ্বরও থাকে। একটানা বেশ ক’দিন থাকার কারণে মাইগ্রেনের যন্ত্রণা শরীরকে কাহিল করে দেয়।

শীত পড়তেই ঘরে ঘরে ঠান্ডা লাগা, সর্দি-কাশি, জ্বর লেগেই থাকে। এর সঙ্গে যদি যোগ হয় মাইগ্রেনের কষ্টও, তা হলে তা আরও অসহনীয় হয়ে ওঠে। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিনের এমন অনেক অভ্যাস আছে যার উপরেও এ ব্যথার প্রকোপ বাড়ে। এ কারণে মাইগ্রেনর ব্যথা কমাতে কিছু অভ্যাস পরিবর্তন জরুরি।

অনিয়মিত ঘুম : প্রতিদিন কমপক্ষে ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন। একান্ত না পারলে অন্তত ৬ ঘণ্টা ঘুমান। রাত জেগে ওয়েব সিরিজ, মোবাইল দেখার অভ্যাস নিয়ন্ত্রণ করুন।

চিনি : অতিরিক্ত চিনি আছে, এমন খাবার এড়িয়ে চলুন। রক্তে চিনির পরিমাণ বাড়লে মাইগ্রেনের ব্যথা বাড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়। মিষ্টি জাতীয় কিছু খান, তবে পরিমিতি বোধ রেখে।

খালি পেট রাখা : দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকলে গ্যাস্ট্রিকের প্রকোপ শুরু হয়। মাইগ্রেন টেনে আনতে গ্যাস্ট্রিকের জুড়ি নেই। কাজেই গ্যাস্ট্রিক এড়াতে পেট খালি না রাখাই উচিত। হাতের কাছে সব সময় শুকনো খাবার রাখুন।

কফির অভ্যাস : কফি খাওয়ার অভ্যাস থাকলে হঠাৎ তা বন্ধ করবেন না। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষণায় দেখা গেছে, রোগীদের ক্ষেত্রে ক্যাফিনের উপস্থিতি হঠাৎ বন্ধ করে দিলে মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়ে। এ কারণে কফি ছাড়তে হলে ধীরে ধীরে ছাড়ুন। প্রয়োজনে পুষ্টিবিদের সঙ্গে কথা বলুন।

একটানা কম্পিউটারের দিকে তাকানো : অফিসে একটানা কম্পিউটারের সামনে বসে কাজ? মাঝেমাঝে বিরতি না নিলে মাইগ্রেনের সমস্যা বাড়বে। কাজের ফাঁকে ফাঁকে একটু চোখ-মুখে পানি দিয়ে আসুন। মাঝেমধ্যে বসার আসন থেকে উঠে ঘুরে আসুন।

সূত্র: Rtv News

সর্বশেষ

সর্বশেষ