• মঙ্গলবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

  • || ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

ক্ষেতলালে আলু রোপণে ব্যস্ত কৃষক

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২২  

জানা গেছে, আলু উৎপাদনে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জেলা হিসেবে পরিচিত জয়পুরহাট। রোপা আমন ধান কাটার পরপরই কৃষকরা মূলত আলুর বীজ রোপণের কাজ শুরু করেন। তারই ধারাবাহিকতায় জেলার ক্ষেতলাল উপজেলায় এখন জমিতে আলুর বীজ রোপণের কাজ শুরু করছে কৃষক। রোপা আমন ধান ঘরে তুলতে না তুলতেই শুরু হয়েছে আলু বীজ রোপণের কাজ। সবমিলিয়ে এক ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা।

ক্ষেতলাল উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর চলতি ২০২২-২৩ মৌসুমে উপজেলায় ৮ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হয়েছে। যার মধ্যে অর্জন ২ হাজার ৯৭৫ হেক্টর। যা উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে দেশের অন্যান্য জেলায় পাঠানো সম্ভব হবে।

কৃষি বিভাগ আরও জানায়, প্রতিবিঘা জমিতে আলু চাষের জন্য ইউরিয়া ৪৫ কেজি, টিএসপি/ডিএপি ৩০ কেজি, এমওপি ৪০ কেজি, জিপসাম ১৫ কেজি, জিংক সালফেট ১.৫ কেজি, বোরন ১.৫ কেজি, গোবর ১৫০০ কেজি করে ব্যবহার করার জন্য কৃষকদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। আলু চাষ সফল করতে উপজেলায় সারের মজুদ পর্যাপ্ত রয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার, জাহিদুর রহমান জানান, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে। চলতি মৌসুমে বিএডিসির উচ্চ ফলনশীল এ্যাস্টোরিক জাতের আলুবীজের চাহিদা একটু বেশি পাশাপাশি গ্যানোলা,মিউজিকা, ডায়মন্ড, কার্ডিনাল, ক্যারেজ, রোমনা ও লাল পাকরি জাতের আলু বেশি রোপণ হচ্ছে। তিনি আরো জানান, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় আলুর পাশাপাশি সরিষা চাষের জন্য কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। সরিষার লক্ষ্যমাত্রা ১ হাজার ২৫০ হেক্টর, যা গতবছরের তুলনায় অনেক বেশি। ইতিমধ্যে ৫শত ৬২ অর্জন হয়েছে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট