শুক্রবার   ২৪ মে ২০২৪ || ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ১১:৩৬, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী আলোচনা সভায় হুইপ স্বপন

জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী আলোচনা সভায়  হুইপ স্বপন

জাতীয় সংসদের হুইপ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি বলেছেন, মানুষের মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখতে মানবিক গুণাবলীর বিকাশ ঘটানোর মাধ্যমে সমাজকে বসবাসযোগ্য তথা একটি ভালোমানের সমাজে উত্তরনের ক্ষেত্রে গণতন্ত্র একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

গণমাধ্যমকে সেই গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলা হয়ে থাকে। আমরা দেখি, বুঝি এবং জানি বিভিন্ন সময়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে গণমাধ্যম মানুষের পক্ষে কথা বলে। সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে মানুষের সমস্যা ও সম্ভাবনা তুলে ধরে বিভিন্ন পত্রিকার পাতায় পাতায় সম্পাদকীয় উপ-সম্পাদকীয় ও বিভিন্ন আর্টিকেল প্রকাশিত হয়।

যে আর্টিকেলগুলো আমাদের সামাজিক মূল্যবোধ বিনির্মাণে ভালো ভূমিকা পালন করে। শুক্রবার সন্ধ্যায় জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের ৫০ বছর পূর্তিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, আগে আমাদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা ছিল না। আমরা তখন বিবিসি, ভয়েস অব আমেরিকাসহ পৃথিবীর নামি-দামি গণমাধ্যমে প্রচারিত সংবাদের ওপর নির্ভরশীল ছিলাম।

কিন্তু বর্তমানে আমরা স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ করতে পারছি। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণ ও দক্ষ রাষ্ট্র পরিচালনায় বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা লাভ করেছে। দেশের গণমাধ্যমকে স্বাধীনভাবে কাজ করার অধিকারও তিনি প্রতিষ্ঠিত করেছেন। সাংবাদিকতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও দায়িত্বশীল পেশা।

সেই দায়িত্বশীলতা অক্ষুন্ন রেখে মর্যাদাপূর্ণ ও আত্মনির্ভরশীল বাংলাদেশ বিনির্মাণে বর্তমান প্রজন্মকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে শুধু নেগেটিভ নয়, গণমাধ্যমকর্মীদের দায়িত্বশীলতার সাথে পজিটিভ সংবাদও প্রকাশের আহ্বান জানান তিনি। 

জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খ.ম আব্দুর রহমান রনির সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে সুবর্ণ জয়ন্তীর স্মরণীকার মোড়ক উন্মোচন শেষে প্রেসক্লাবের সদস্যদের হাতে তিনি সুবর্ণ জয়ন্তীর সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন। 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্র নাথ মন্ডল। বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামুনুর রশিদ চিশতী, জয়পুরহাট জেলা জজ আদালতের জিপি অ্যাডভোকেট মোমিন আহম্মেদ চৌধুরী প্রমুখ। পরে স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করা হয়।

জাগ্রত জয়পুরহাট

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ