শুক্রবার   ১৪ জুন ২০২৪ || ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

প্রকাশিত: ০৯:২৫, ১৭ নভেম্বর ২০২৩

আপডেট: ১৮:২৭, ১৭ নভেম্বর ২০২৩

জয়পুরহাটে সুধী সমাবেশের আলোচনা সভায় হুইপ স্বপন

জয়পুরহাটে সুধী সমাবেশের আলোচনা সভায় হুইপ স্বপন
সংগৃহীত

যে কোনো দেশি বা বিদেশি ব্যক্তি অসাংবিধানিক পথে সরকার পরিবর্তনের চেষ্টা করলে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত হতে পারেন বলে মন্তব্য করেছেন এবং তিনি আরও বলেন সকল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে সচেতন থাকুন, অবৈধ পথে সরকার পরিবর্তনের চেষ্টায় হতে পারে, জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আফগানিস্তান, ইরাক বা ফিলিস্তিন নয়। এ দেশ এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বদেশ।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে জয়পুরহাট-২ আসনের আয়োজিত এক সুধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেছেন, বাংলাদেশ সংবিধানের ৭ অনুচ্ছেদের ১ ও ২ দফা এবং ৭ক অনুচ্ছেদের ১ দফার ক, খ, ২ দফার ক ও খ উপদফা মোতাবেক কোনো ব্যক্তি শক্তি প্রদর্শন বা শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে বা অন্য কোন অসাংবিধানিক পন্থায়- (ক) এই সংবিধান বা ইহার কোন অনুচ্ছেদ রদ, রহিত বা বাতিল বা স্থগিত করিলে কিংবা উহা করিবার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ বা ষড়যন্ত্র করিলে ; কিংবা (খ) এই সংবিধান বা ইহার কোন বিধানের প্রতি নাগরিকের আস্থা, বিশ্বাস বা প্রত্যয় পরাহত করিলে কিংবা উহা করিবার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ বা ষড়যন্ত্র করিলে- তাহার এই কার্য রাষ্ট্রদ্রোহিতা হইবে এবং ঐ ব্যক্তি রাষ্ট্রদ্রোহিতার অপরাধে দোষী হইবে। (২) কোন ব্যক্তি (১) দফায় বর্ণিত- (ক) কোন কার্য করিতে সহযোগিতা বা উস্কানি প্রদান করিলে; কিংবা (খ) কার্য অনুমোদন, মার্জনা, সমর্থন বা অনুসমর্থন করিলে- তাহার এইরুপ কার্যও একই অপরাধ হইবে।

তিনি আরও বলেন, সংবিধানের ৭ (ক) অনুচ্ছেদের ৩ দফা মোতাবেক অপরাধে দোষী ব্যক্তি প্রচলিত আইনে অন্যান্য অপরাধের জন্য নির্ধারিত দণ্ডের সর্বোচ্চ দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। সুতরাং নির্বাচন ব্যতিত অন্য কোনো উপায়ে বলপ্রয়োগ করে অসাংবিধানিক পন্থায় সরকার পরিবর্তনের যেকোনো চেষ্টার সঙ্গে দেশি বা বিদেশি যেকোনো ব্যক্তি ষড়যন্ত্র করলে, তিনি বা তারা বাংলাদেশের প্রচলিত আইন থেকে কেউ রেহাই পাবেন না। বাংলাদেশ আফগানিস্তান, ইরাক বা ফিলিস্তিন নয়। এ দেশ এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বদেশ।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ