সোমবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ || ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ১২:৪৩, ২৫ নভেম্বর ২০২৩

কালাইয়ের সবজি ঢাকায় বিক্রি করে দিন বদলেছে জাবেদের জীবন

কালাইয়ের সবজি ঢাকায় বিক্রি করে দিন বদলেছে জাবেদের জীবন
সংগৃহীত

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলাসহ জেলার চারটি উপজেলা থেকে প্রায় ৩০জন  শ্রমিকের সাহায্যে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ হাজার কেজি বিভিন্ন ধরনের সবজি সংগ্রহ শেষে, ট্রাকযোগে সেগুলো ঢাকা শহরে নিয়ে বিক্রি করেন তিনি। ফিরে আসেন তিনি প্রতি রাতেই।

তিনি ট্রাকেই বসে খাবারখান আর ট্রাকেই ঘুমান। এভাবে সব খরচ বাদ দিয়ে প্রতি দিন তাঁর লাভ থাকে প্রায় চার হাজার টাকা। ১৯৯৫ সাল থেকে এ কাজ করছেন তিনি। এভাবেই তাঁর দিন বদল হয়েছে। কথাগুলো বলা হচ্ছে, জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার পুনট ইউনিয়নের পাঁচগ্রামের বাসিন্দা মো.জাবেদ আলী প্রামানিকের কথা।

জাবেদ আলী প্রামানিক জানান, এখন থেকে ৩০ বছর পূর্বে, তাঁর সামান্য জমাজমি ছিল। সেই জমির উপরে ছিল ঘড়ের তৈরি একটি কুড়ে ঘর। সংসার ছিল টলটলে। কিভাবে দিন চলবে, সংসার চলবে- তা নিয়ে সব সময় দুশ্চিন্তায় ছিলেন তিনি। এরই মধ্যে ১৯৯৫ সালে যমুনা নদীর উপর বঙ্গন্ধু সেতে নির্মাণ শেষে উদ্বোধন হয়। ঢাকায় চলাচল সহজ হয়। তখন তাঁর মাথার ঢাকা শহরে সবজি রপ্তানির বুদ্ধি আসে। সেই থেকেই এ ব্যবসা শুরু করেছেন তিনি। এরপর তাঁকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। বর্তমান তার আছে ইটের ঘর, গোয়াল ভরা আছে গরু, কিনেছেন অনেক জমি। এখন স্ত্রী আর ২ ছেলেকে নিয়ে তার দিন চলে নির্ভাবনায়।

একই গ্রামের শ্রমিক আরিফুল ইসলাম ও জাহিদুল ইসলাম জানান, ব্যাপারী জাবেদ আলী প্রামানি প্রতিদিন জেলার কালাই, জয়পুরহাট সদরসহ ক্ষেতলাল, আক্কেলপুর ও পাঁচবিবি উপজেলার বিভিন্ন কৃষকদের নিকট থেকে বেগুন, করল, শসা, খিরা, মুলা, বরবটি, টমেটো, কচুর লতি, কচুর মুখীা, ফুলকপি, কাঁচামরিচ ও পটলসহ নান সবজি কিনে নেন, তাঁরা প্রায় ৩০ জন শ্রমিক সেগুলো ট্রাকে লোডের জন্য বস্তাবন্দি করে ভ্যানযোগে আরতে নিয়ে যান। 

সর্বশেষ

জনপ্রিয়