মঙ্গলবার   ০৫ মার্চ ২০২৪ || ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ২০:০৩, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কালাইয়ে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ (ভিডিওসহ)

জয়পুরহাটের কালাইয়ে গত বছরের চেয়ে এবার বেশি জমিতে সরিষা চাষ হয়েছে। নিবিড় ফসল উৎপাদন কর্মসূচির আওতায়  চলতি মৌসুমে ৬৭০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হয়েছে এ উপজেলায়। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার সরিষার বাম্পার ফলনের আশা স্থানীয় কৃষি বিভাগের।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধিতে কৃষি প্রনোদনার আওতায় ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে ৩ হাজার ২শ' জন কৃষকের মাঝে উন্নত জাতের সরিষা বারি-১৪ বীজ ও সার বিতরণ করা হয়েছে। 

গত বছর ৪০০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। চলতি মৌসুমে উপজেলায় ৬৭০ হেক্টর জমিতে সরিষা চাষ হয়েছে। এর বিপরীতে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১ হাজার ২শ' ৭৫ মেট্রিক টন সরিষা ।

ক্রমাগত সরিষা চাষ বাড়াতে উপজেলার অনেক মাঠ এখন সরিষার হলুদ রঙে ছেয়ে গেছে। শীতের সকালে সরিষার হলুদ ফুলের মৌ মৌ গন্ধে ভিন্নরকম অনুভূতি তৈরি করে। প্রাচীন কাল থেকেই সরিষার তেলের নানাবিধ গুনাগুন পাওয়া যায়। মাঝখানে সরিষা চাষে আগ্রহ হারিয়ে ফেললেও এখন আবার জোরেশোরে সরিষা চাষে ঝুঁকেছেন কৃষক।

 এতে অনেক মাঠ ছেয়ে গেছে সরিষা ফুলের হলুদ বর্ণতে। এসব ক্ষেতে হাজার হাজার মৌমাছির গুনগুনানি শব্দে মুখরিত হয়ে উঠেছে। সরিষার ফুলে ফুলে মৌমাছিরা মধু সংগ্রহ করতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে। প্রাকৃতিক অপরুপ সুন্দর সরিষার হলুদ ফুলদেখে ছবি তোলার লোভ সামলাতে পারছেনা অনেকেই । 

কালাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ অরুণ চন্দ্র রায় ভোরের ডাক'কে বলেন, সরিষা চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করতে ভালো ফলনের লক্ষে কৃষক পর্যায়ে উন্নত জাতের বীজ প্রনোদনা হিসেবে দেওয়া হয়েছে। এতে ফলন বৃদ্ধি, পতিত জমিতে সরিষা চাষ এবং বাজারে সরিষার ভালো মূল্য পাওয়ায় কৃষকরা এচাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। আবহাওয়া ভাল থাকায় এবারও সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়