শনিবার   ১৩ এপ্রিল ২০২৪ || ২৯ চৈত্র ১৪৩০

প্রকাশিত: ১৬:৪৯, ২ মার্চ ২০২৪

জয়পুরহাটে নারী উদ্যোক্তাদের মেলায় হরেক পণ্যের পসরা

জয়পুরহাটে নারী উদ্যোক্তাদের মেলায় হরেক পণ্যের পসরা
সংগৃহীত

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পণ্য বেচাকেনা করা উদ্যোক্তাদের আয়োজনে জয়পুরহাটে দুই দিনব্যাপী উদ্যোক্তা মেলা ও পিঠা উৎসব চলছে। হাতের তৈরি হরেক রকম খাবার আর পণ্য সামগ্রী ক্রয়ে বিভিন্ন বয়সী মানুষদের ভিড় করতে দেখা গেছে মেলায়। ক্রেতা-বিক্রেতা ও দর্শনার্থীদের উপস্থিতি মেলাকে প্রাণবন্ত করে তুলেছে। তারা মনে করেন, এই ধরনের আয়োজন উদ্যোক্তাদের পথকে আরও সহজ ও প্রসারিত করবে। 

শুক্রবার (১ মার্চ) বিকেলে জয়পুরহাট শহরের শহীদ কবি মাহতাব উদ্দিন বিদ্যাপীঠ মাঠে মেলা শুরু হয়। নারীদের হাতে তৈরি করা পণ্য এই মেলায় জায়গা পেয়েছে। শনিবার (২ মার্চ) রাত ১০টা পর্যন্ত মেলাটি চলবে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০২১ সালে জেলার নারীদের সমন্বয়ে জয়পুরহাটে ‘বেচাকেনা উদ্যোক্তা’ ফেসবুক গ্রুপে যাত্রা শুরু করে। গ্রুপটিতে বর্তমান উদ্যোক্তার সংখ্যা ৫৭ হাজার। বাড়িতে বসে  হাতে তৈরি করা মুখরোচক খাবার, হস্তশিল্প, কুটির শিল্পসহ বিভিন্ন ডিজাইনের পোশাক ও নানা রকম পণ্য বিক্রি করেন নারীরা। এই মেলায় বেচাকেনা উদ্যোক্তা গ্রুপের সদস্যরা ৪০টি স্টল দিয়েছেন। মেলায় হাতের তৈরি বিভিন্ন পণ্য ক্রয় করতে দেখা গেছে ক্রেতাদের।

জানতে চাইলে শারমিন রায়হান নামের এক উদ্যোক্তা  বলেন, ‘নারীরা যে পিছিয়ে নেই তা এই মেলার মাধ্যমে আমরা প্রকাশ করছি। আমরা নারীরাও ছেলেদের মতো অনেক কিছুই করতে পারি। আর মেলার মাধ্যমে নারী উদ্যোক্তাদের তৈরি করা পণ্যের প্রসার বাড়বে ও দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে।’

শারমিন সুলতানা নামে মেলায় আগত এক ক্রেতা বলেন, ‘অনলাইনের সবকিছু সবাই বিশ্বাস করতে পারে না। বিশেষ করে পণ্যের মান নিয়ে অনেকে শঙ্কা থাকে। এই মেলার মাধ্যমে উদ্যোক্তরা পণ্যগুলো সরাসরি দেখার সুযোগ করে দিয়েছে আমাদের। এর ফলে, পণ্যের গুণগতমান সম্পর্কে ক্রেতারা অবগত হচ্ছেন।’ 

মেলায় অশংগ্রহণকারী নারী উদ্যোক্তা মিম মুশফিকা সুমি বলেন, ‘পণ্য বিক্রি হোক বা না হোক ক্রেতারা সরাসরি আমাদের পণ্যগুলো নিজের হাতে নেড়েচেড়ে বুঝতে পারছেন আমরা ঘরে বসে কী ধরণের কাজ করছি। মূলত মেলার মূল উদ্দেশ্যই এটি।’

বেচাকেনা উদ্যোক্তা গ্রুপের এডমিন আবু রায়হান রাসেল বলেন, ‌‘অল্প পুঁজিতে যাতে নারী উদ্যোক্তারা অর্থনৈতিক দিক থেকে স্বচ্ছল হতে পারেন এবং দেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখতে পারেন সেই লক্ষ্যেই এই মেলার আয়োজন। জয়পুরহাটের বেচাকেনা উদ্যোক্তা গ্রুপ কাজ করে যাচ্ছে। এই গ্রুপের মাধ্যমে নারী উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন পণ্য তৈরী করতে ফ্রিতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে এবং ভবিষ্যতে এর পরিধি আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আমরা আশা করছি।’

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের জয়পুরহাট জেলা শাখার সভাপতি আহমেদ মোশারফ নান্নু বলেন, বাজারে অনেক সময় ইউনিক পণ্যগুলো খুঁজে পাওয়া যায় না। আর মেলাতে এক সঙ্গে অনেকেই প্রতেযোগিতামূলকভাবে এসব পণ্য বিক্রি করছেন। মেলার মাধ্যমে জেলার  নারী উদ্যোক্তারা উত্সাহী ও অনুপ্রাণিত হবেন।

সর্বশেষ

জনপ্রিয়

সর্বশেষ

শিরোনাম

আয়ারল্যান্ডের সর্বকনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার অভিনন্দনসুইজারল্যান্ডে স্কলারশিপ পাওয়ার উপায় কিঈদের দিন ৩ হাসপাতাল পরিদর্শন স্বাস্থ্যমন্ত্রীরঈদের জামাতে নামাজরত অবস্থায় ভাইয়ের মৃত্যু, খবর শুনে মারা গেলেন বোনওসদরঘাটে শেষ বিল্লালের পুরো পরিবারবৈসাবি উৎসবের আমেজে ভাসছে ৩ পার্বত্য জেলাব্যাংক ডাকাতি থেকে বাঁচতে জয়পুরহাটে কড়া নিরাপত্তাএলাকায় মসজিদ ছিল না, জমি কিনে মসজিদ বানালেন সবজি বিক্রেতাবায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাতে মুসল্লিদের ঢলআজ ঈদ, মুসলমানদের ঘরে আনন্দের বন্যাভারতে পাচারের সময় কোটি টাকা মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধারজাহাজে ঈদের নামাজ আদায় করেছেন জিম্মি নাবিকরা