• রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ২ ১৪২৮

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাগ্রত জয়পুরহাট

পাঁচবিবিতে লকডাউনে হতাশ পোশাক তৈরীর কারিগররা

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৯ এপ্রিল ২০২১  

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রম রোধে সরকার ঘোষিত লকডাউনে সারাদেশের ন্যায় বিপাকে পড়েছে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার কয়েক শতাধিক পেশাক তৈরীর কারিগর। লকডাউনে দোকানপাট বন্ধ থাকায় পরিবারের সদস্যদের মূখে অন্ন তুলে দেওয়ায় যেন দুষ্কর হয়ে পড়েছে এখন তাদের।

দ্বিতীয় ধাপের লকডাউনে রমজানের প্রথম সপ্তাহ প্রায় শেষের পথে। তবুও লকডাউনের কারনে নিজস্ব কর্মস্থল পোশাক তৈরীতে ফিরতে না পাওয়ায় কারগিরদের চোখ-মূখে এখন হতাশার ছাপ ছাড়া যেন আর কিছুই নেই। সরকার যদি লকডাউন একটু সিথিল করে এবং কৃষকের বোরো ধানকাটা হয়ে গেলে ঈদের আগে অর্ডার পাওয়া যাবে এমন আশায় আছেন অনেকেই।

পাঁচবিবির আপন টেইর্লাসের কারিগর রোকনুজ্জামান পটু বলেন, প্রতিবছর রোজার প্রথম থেকেই কাজের চাপে একটুও বিশ্রাম নেওয়ার সময় থাকেনা। কিন্ত এবছর ঈদের অর্ডার এখনও তেমন পাওয়া যায়নি, দজির্দের পরিবার এবছর ঈদ কেমনে করবে সংশয়ে আছে তারা। উপজেলার বাগজানা বাজারে ভাড়া দোকানে কাপড় বিক্রির পাশাপাশি বাবা-ছেলে দীর্ঘদিন যাবৎ দর্জির কাজ করে আসছেন।

ছেলে রায়হান বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও এনজিও থেকে লোন নিয়ে দোকানে কাপড় উঠালাম এখন পর্যন্ত তেমন কাজের অর্ডার পাইনি। লোন পরিশোধ করব কিভাবে সংশয়ে আছে বলেও জানান তিনি।

উপজেলার শালাইপুর বাজারে ছোট্ট ঘরে আঃ মান্নান বহুদিন ধরে দর্জির কাজ করে আসছেন তিঁনিও একই মন্তব্য করেন। লকডাইন শেষ হলে ও কৃষকের ঘরে ইরি ধান উঠলে ঈদের আগে কাপড় বিক্রি বাড়বে এবং কাজও পাওয়া যাবে এমন ধারণা সবার।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট