মঙ্গলবার   ০৫ মার্চ ২০২৪ || ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ১৭:৪১, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

পছন্দমতো স্বপ্ন দেখতে সাহায্য করবে এআই

পছন্দমতো স্বপ্ন দেখতে সাহায্য করবে এআই
সংগৃহীত

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা এআইয়ের ছোঁয়া এখন সর্বত্র। যেকোনো কাজ এআইয়ের সাহায্য পেলে তা  হয়ে ওঠে সহজ ও দ্রুততর। এখন আপনি নিজের পছন্দমতো স্বপ্নও দেখতে পারবেন। এ ব্যাপারে সাহায্য করবে এআই।

অনেকেই আছেন রাতে দুঃস্বপ্ন দেখেন। সারাদিন কাটে অস্থিরতায়। তবে এবার থেকে আপনি কী স্বপ্ন দেখবেন, তা নিজেই ঠিক করে ফেলতে পারবেন। না জেগে জেগে স্বপ্ন দেখা নয়। বরং ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কী স্বপ্ন দেখবেন, তা আপনার ইচ্ছাতেই হবে।

স্বপ্নের জগৎ হাজার হাজার বছর ধরে মানুষকে কৌতূহলী করে তুলেছে। এটি এমনই এক রহস্যময় পৃথিবী, যার রহস্য মানব সভ্যতা শুরু থেকেই বোঝার চেষ্টা করে আসছে। এবার আপনি স্বপ্নের এই অনিয়ন্ত্রিত পৃথিবী নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। ক্রমাগত উন্নয়নশীল প্রযুক্তি এটি সম্ভব করেছে।

কটি প্রযুক্তি কোম্পানি আপনাকে স্বপ্নের রহস্যময় জগতে সরাসরি প্রবেশ করাবে। তার জন্য একটি চমৎকার ডিভাইস ডিজাইন করেছে। প্রোফেটিক নামের এই কোম্পানিটি সম্প্রতি হ্যালো এআই হেডব্যান্ড নামে একটি নতুন ডিভাইস তৈরি করেছে, যার সাহায্যে আপনি শুধু স্বপ্নের জগতেই প্রবেশ করতে পারবেন না, স্বপ্নের জগতকে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

কোম্পানির দাবি, এই হেডব্যান্ডের সাহায্যে আপনি ঘুমের মধ্যে আপনার পছন্দের স্বপ্ন দেখতে পারবেন। ড্রিমস অন ডিমান্ড নামে এটি প্রচার করা হচ্ছে। প্রফেটিকের মতে, তারা অত্যাধুনিক কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে এই ডিভাইসটি প্রস্তুত করেছে। এই ডিভাইসটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে কাজ করে।

হ্যালো এআই হেডব্যান্ড ডিভাইসটি আল্ট্রাসাউন্ড ব্যবহার করে স্বপ্নের জগতের দরজা খুলে দেয়। এর পরে ব্যবহারকারী তার স্বপ্নের জগতে প্রবেশ করতে পারেন। কোম্পানির ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, হ্যালো এআই হেডব্যান্ড একটি উন্নত নিউরোটেক পরিধানযোগ্য ডিভাইস, যা ব্যবহারকারীর অবচেতনে তার মস্তিস্কে প্রবেশ করে।

আপনাকে স্বপ্নের জগতে প্রবেশ করার পর এই ডিভাইসটি আপনার উপর নিয়ন্ত্রণের ভার দেয়। ব্যবহারকারীরা তাদের স্বপ্নকেও নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এটিও বোঝা যায় যে প্রফেটিক এর হ্যালো এআই হেডব্যান্ডের সাহায্যে আপনি স্বপ্নের জগতে প্রবেশ করতে পারবেন এবং এটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন এবং আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী স্বপ্ন দেখতে পারবেন।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়