• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৪ মুহররম ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

দেখব ইংল্যান্ডের এই ‘ব্যাজবল’ ক্রিকেট কতদিন স্থায়ী হয়: স্মিথ

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ৭ জুলাই ২০২২  

সাম্প্রতিক সময়ে টেস্ট ক্রিকেটের ধারণাই বদলে দিয়েছে ইংল্যান্ড। টুকটুক ব্যাটিং, কচ্ছপগতিতে এগিয়ে চলা কিংবা উইকেটে টিকে থাকার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা-টেস্টের কোনো ধারার সঙ্গেই যেন মিলছে না ইংল্যান্ডের ক্রিকেট।

ব্রেন্ডন ম্যাককালাম কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পর ইংল্যান্ডের টেস্ট দল এই মুহূর্তে খুবই আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলছে। যে কারণে তারা ধারাবাহিকভাবে ম্যাচও জিতছে।

কদিন আগে টেস্ট সিরিজে নিউজিল্যান্ডকে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করে ইংলিশরা। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এজবাস্টন টেস্টে ভারতকেও হারায় বড় ব্যবধানে।

ইংল্যান্ড এখন মারকাটারি ক্রিকেট খেলছে টেস্টে। হোক টেস্টের চতুর্থ ইনিংস কিংবা পঞ্চম দিন, তাদের সামনে এখন ৪০০-৫০০ কোনো রানই নিরাপদ নয়। ইংল্যান্ডের এই আক্রমণাত্মক ক্রিকেটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ব্যাজবল’ স্টাইল। যা নিয়ে বিশ্ব ক্রিকেটে আলোচনার ঝড় উঠেছে।

এবার সেই আলোচনায় যোগ দিলেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক ও টেস্টে বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটার স্টিভেন স্মিথ। তিনি যেন কিছুটা খোঁচাই দিলেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের।

স্মিথের মতে, ইংল্যান্ড দলের এই নতুন স্টাইলটি বেশ রোমাঞ্চকর হলেও কতদিন চলবে, সে বিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছে না। এমন ক্রিকেটের স্থায়ীত্ব নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টের আগে ইংলিশদের খেলার প্রসঙ্গ আসলে স্মিথ বলেন, ‘এটা খুবই রোমাঞ্চকর। তবে আমি দেখতে চাই, এটা কতদিন স্থায়ী হয়। এটা কি একটানা চলতে পারে?’

স্মিথ যোগ করেন, ‘আপনি যদি এমন উইকেটে ব্যাট করেন যেখানে ঘাস আছে এবং প্যাট কামিন্স, জস হ্যাজেলউড আর মিচেল স্টার্ক সামনে থেকে বোলিং করছেন, আপনি কি তখনও এভাবে ব্যাট করবেন? আমরা দেখব ভবিষ্যতে কী হয়।’

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট