• বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

১৭ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে নেমে জয়ের হাসি ইংল্যান্ডের

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২  

সেই ২০০৫ সালে শেষবার পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল ইংল্যান্ড। এরপর কেটে গেছে ১৭টি বছর। ২০০৯ সালে লাহোরে লঙ্কান টিম বাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর তো বলতে গেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধই হয়ে গিয়েছিল পাকিস্তানে। গত কয়েক বছরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও ইংল্যান্ডের ‘যাই-যাই করে’ আর যাওয়া হয়নি। অবশেষে ইংলিশরা পাকিস্তানে সিরিজ খেলতে গেছে। মঙ্গলবার শুরু হয়েছে সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

১৭ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে নেমেই জয়ের হাসি হেসেছে ইংলিশরা। করাচিতে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বাবর আজমের দলকে ৬ উইকেট আর ৪ বল হাতে রেখে হারিয়েছে অতিথি দল। টস জিতে পাকিস্তানকে প্রথমে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান ইংলিশ অধিনায়ক মঈন আলি। বাবর আজম আর মোহাম্মদ রিজওয়ান দলকে এনে দেন দারুণ সূচনা। উদ্বোধনী জুটিতে ৫৭ বলে ৮৫ রান তোলে পাকিস্তান।

তবে মাঝে স্বাগতিকদের ভালোভাবেই চেপে ধরেন ইংলিশ বোলাররা। ফলে প্রত্যাশিত পুঁজি পায়নি পাকিস্তান। ৭ উইকেটে ১৫৮ রানেই আটকে যায় তারা। রিজওয়ান ৪৬ বলে ৬ চার আর ২ ছক্কায় করেন ৬৮ রান। বাবর করেন ২৪ বলে ৩১।

কিন্তু এরপর হায়দার আলি (১৩ বলে ১১), শান মাসুদ (৭ বলে ৭), মোহাম্মদ নওয়াজরা (৫ বলে ৪) দলের চাহিদা মেটাতে পারেননি। মেরে খেলছিলেন ইফতিখার আহমেদ। তিনি শেষ ওভারে আউট হন ১৭ বলে ২৮ করে।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল ছিলেন অভিষিক্ত লুক উড। ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রান খরচায় ৩টি উইকেট নেন বাঁহাতি এই পেসার। তিনিই হন ম্যাচসেরা।

১৫৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অ্যালেক্স হেলসের হাফসেঞ্চুরিতে সহজ জয়ের পথ তৈরি হয়ে যায় ইংল্যান্ডের। ৪০ বলে ৭ বাউন্ডারিতে ৫৩ রান করে হেলস যখন ফিরছেন, ২০ বলে মাত্র ১৭ রান দরকার সফরকারীদের।

হ্যারি ব্রুকস ২৫ বলে ৭ চারের সাহায্যে ৪২ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন। মাঝে বেন ডাকেটের ১৭ বলে ২১ আর ডেভিড মালানের ১৫ বলে ২০ রানও দলের জয়ে অবদান রেখেছে।

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট