• মঙ্গলবার   ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৮ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

জাগ্রত জয়পুরহাট

নতুন বিতর্কে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষক

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০২৩  

বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজকে। বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম প্রধান এই কারিগরকে নিয়ে এবার অভিযোগ তুলেছেন এমি’র সাবেক সতীর্থ মিখাইল অ্যান্তোনিয়ো। তাছাড়াও মার্টিনেজকে সাপের সঙ্গে তুলনা করেছেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ওয়েস্ট হ্যামের হয়ে খেলা অ্যান্তোনিয়ো।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে জ্যামাইকার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলতে নেমেছিল আর্জেন্টিনা। ম্যাচটির শেষ দিকে মাঠে নেমেছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিও মেসি। মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যেই দুইটি গোল করেছিলেন এই ক্ষুদে জাদুকর। মেসি-আলভারেজদের বিপক্ষে সেইদিন জ্যামাইকা দলের হয়ে খেলছিলেন অ্যান্তোনিয়ো। ম্যাচ শেষে তিনি মার্টিনেজের কাছে মেসির জার্সি চেয়েছিলেন।

তবে তার অভিযোগ, ভাল সম্পর্ক থাকার পরও তাকে জার্সি না দিয়ে অন্য এক ফুটবলারকে মেসির জার্সি দিয়েছিলেন এমি। এই প্রসঙ্গে অ্যান্তোনিয়ো বলেন, ‘মার্টিনেজ আস্ত একটা সাপ। ওকে বিশ্বাস করা যায় না। ১০ বছর আগে আমি ওর সঙ্গে খেলেছি। তাও একটি না, দুইটি ক্লাবে একসঙ্গে খেলেছি। তবুও আমার থেকে লিওন বেলি ওর কাছে আপন হল। মেসির একটা জার্সি চেয়েছিলাম। সে (মার্টিনেজ) নিয়েও এসেছিল। তবে আমাকে না দিয়ে সেটা বেলিকে দিয়েছিল।’ 

তাছাড়াও কাতারে স্বপ্ন যাত্রার পর নানারকম বিতর্কের মুখে পড়েন এমি। জয়ের পর মাঠের মধ্যেই অশ্লীল ভঙ্গি থেকে শুরু করে ছাদখোলা বাসে ফরাসি তারকা এমবাপের পুতুল নিয়ে রসিকতায় অনেকের তোপের মুখে পড়েন তিনি। মার্টিনেজের এমন বিতর্কিত কান্ডে আলবিসেলেস্তা কোচ লিওনেল স্ক্যালোনি বলেন, ‘মার্টিনেজের এমন কিছু আচরণে অনেকেই খুশি হবেন না। কিন্তু সে একজন দারুণ ছেলে। অনেকটা বাচ্চাদের মতো। ও কতটা ভালো ছেলে তা জানলে অবিশ্বাস্য মনে হবে। তাকে ভালো করে চেনা উচিত।’

এর আগে আর্জেন্টাইন বাজপাখি খ্যাত এমির বিরুদ্ধে ফিফার কাছে অভিযোগ জানিয়েছিল ফ্রান্স। সেই সঙ্গে এর প্রতিবাদ জানিয়ে আর্জেন্টিনার ফুটবল সংস্থার সভাপতিকে চিঠি দেন ফরাসি ফুটবল সংস্থার সভাপতি নোঁয়ে লে গ্রায়েঁত। সেখানে গ্রায়েঁত বলেছিলেন, ‘আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ হাতে নিয়েছি। ফ্রান্স দলকে সফল করতে আমাদের ফুটবলাররা নিজেদের সেরাটা দিয়েছে। এই জন্য তাদের সমর্থন দেওয়া অনেক জরুরি। আমি আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনকে চিঠি দিয়েছি। একটা ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় এরূপ আচরণ অস্বাভাবিক, এমবাপের আচরণ ছিল স্বাভাবিক। এটা অনেক দূর পর্যন্ত গড়িয়েছে।’

জাগ্রত জয়পুরহাট
জাগ্রত জয়পুরহাট