মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০২৪ || ১০ আষাঢ় ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত : ১৩:৪২, ২০ মে ২০২৪

অস্তিত্বের খরায় ভুগছেন তারা

অস্তিত্বের খরায় ভুগছেন তারা
সংগৃহীত

শাবানা, কবরী, ববিতার মতো চলচ্চিত্রে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন মৌসুমী, পূর্ণিমা, শাবনূর ও পপি। নব্বই দশক থেকে শুরু করে দীর্ঘ সময় দর্শক মাতিয়েছেন তারা। অনেক ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র উপহার দিলেও আস্থার সংকটে ভুগছেন এই অভিনেত্রীরা। বর্তমানে দর্শক ও নির্মাতাদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছেন তারা। মুখ থুবড়ে পড়ছে তাদের নতুন সিনেমা। মৌসুমী, পূর্ণিমা, শাবনূর ও পপির সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত কোনো সিনেমা আলো ছড়াতে পারেনি!  

দীর্ঘ বিরতির পর গেল ঈদে মুক্তি পেয়েছে চিত্রনায়িকা পূর্ণিমার সিনেমা ‘আহারে জীবন’। মুক্তির আগে এই ছবিকে ঘিরে যতটা উচ্ছ্বসিত ছিলেন নায়িকা, প্রেক্ষাগৃহে আসার পর ততটা বিপর্যস্ত হয়েছেন তিনি। ঈদের ছবির ভিড়ে দর্শকের হৃদয়ে জায়গা করতে পারেনি পূর্ণিমার এই নতুন সিনেমা। ছবির নামের মতোই আক্ষেপে নিমজ্জিত হয়েছে ‘আহারে জীবন’। দর্শক চাহিদা না থাকার কারণে মুক্তির তিন দিন পর হল থেকে নামিয়ে দেওয়া হয় পূর্ণিমার এই ছবিটি। এই সিনেমায় পূর্ণিমার বিপরীতে অভিনয় করেছেন অভিনেতা ফেরদৌস আহমেদ। দীর্ঘদিন পর রুপালি পর্দায় এই জুটির দেখা মিললেও দর্শক হতাশ করেছে তাদের। করোনাকালের কাহিনী নিয়ে সাজানো হয়েছে ‘আহারে জীবন’ সিনেমার গল্প।  

সরকারি অনুদানে ছবিটি পরিচালনা করেছেন ছটকু আহমেদ। সিনেমায় এর আগে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে মুক্তি পায় পূর্ণিমা অভিনীত ‘চিরঞ্জীব মুজিব’। নজরুল ইসলাম পরিচালিত এই সিনেমাটিও কোনো সাড়া ফেলেনি প্রেক্ষাগৃহে। মুক্তির অপেক্ষায় আছে পূর্ণিমার ‘জ্যাম’ ও ‘গাঙচিল’ নামের দুটি সিনেমা। এই দুই সিনেমার ভবিষ্যৎ কী তা সময়ই বলে দেবে। একইভাবে দর্শকের গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছেন না চিত্রনায়িকা মৌসুমী। তাকে সর্বশেষ দেখা গেছে ঈদে ‘সোনার চর’ সিনেমায়। ১৯৭৫ সালের পরবর্তী সময়ের প্রেক্ষাপটে এর কাহিনী নিয়ে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। এখানে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন মৌসুমী এবং তার স্বামীর চরিত্রে ওমর সানী। 

জাহিদ হাসান পরিচালিত এই সিনেমায় আরো অভিনয় করেছেন জায়েদ খান। মুক্তির আগে সিনেমাটি বেশ আলোচনায় থাকলেও প্রেক্ষাগৃহে আসার পর সাড়া পায়নি। ঈদের ছবি নিয়ে মাতামাতি চললেও দর্শক খরায় ভোগে মৌসুমী অভিনীত ‘সোনার চর’। অভিনয়ে মোটামুটি নিয়মিত হলেও আগের জৌলুস ধরে রাখতে পারছেন না এই নায়িকা। প্রায় সিনেমায় তিনি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করছেন। একক নায়িকা হিসেবে তার সর্বশেষ ‘রাত্রির যাত্রী’ সিনেমাটি আলোর মুখ দেখে ২০১৯ সালে। হাবিবুল ইসলাম হাবিব পরিচালিত এই সিনেমায় মৌসুমীর বিপরীতে অভিনয় করেন ছোটপর্দার অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন। এই ছবিটিও দর্শক টানতে ব্যর্থ হন তিনি।

২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে মুক্তি পায় জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা শাবনূরের সর্বশেষ ছবি ‘পাগল মানুষ’। এই সিনেমার মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ৫ বছর পর প্রেক্ষাগৃহে ফিরলেও দর্শকের ন্যূনতম প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি তিনি। ২০১২ সালে ছবিটি নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন প্রয়াত পরিচালক এম এম সরকার। তিনি মারা যাওয়ার পর পরবর্তীতে এ ছবির হাল ধরেন বদিউল আলম খোকন। সফল দুই পরিচালক এক ছবির সঙ্গে যুক্ত থাকার পরও শেষ রক্ষা হয়নি ‘পাগল মানুষ’ সিনেমার। শাবনূরের কারণে ছবিটির প্রতি দর্শকের কিছুটা আগ্রহ তৈরি হলেও সেকেলে পোস্টার ও মস্তিষ্ক বেদনাদায়ক ট্রেলার হতাশ করে সবাইকে। মুক্তির পর সুপার ফ্লপের তকমা পায় ‘পাগল মানুষ’। একেবারেই দর্শকশূন্য ছিল ছবিটির। এই সিনেমায় শাবনূরের বিপরীতে অভিনয় করেন শাহের খান। 

নবাগত এই নায়কের সঙ্গে নায়িকাকে মেনে নিতে পারেননি দর্শক। শুধু তাই নয়, শাবনূরের অভিনয়ও দর্শকদের হতাশ করেছে। কয়েক বছর ধরে পর্দার আড়ালে রয়েছেন চিত্রনায়িকা পপি। তার সর্বশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘দি ডিরেক্টর’। কামরুজ্জামান কামু পরিচালিত এই সিনেমার পরিবেশক না পাওয়ার কারণে এটি ২০১৯ সালে ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পায়। শরৎচন্দ্রের সৃষ্ট বিভিন্ন চরিত্র নিয়ে ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ সিনেমায় পার্বতী চরিত্রে অভিনয় করছেন পপি। আরিফুর জামান আরিফ পরিচালিত এই সিনেমায় ৪৫ শতাংশ কাজের পর দৃশ্যধারণ বন্ধ হয়ে যায়। একই সময় রাজু আলীমের পরিচালনায় ‘ভালোবাসার প্রজাপতি’ নামে আরো একটি সিনেমায় কাজ করেন পপি। 

পাশাপাশি ২০২০ সালের ২৩ অক্টোবর ‘ধোঁয়া’ নামের একটি সিনেমায়ও চুক্তিবদ্ধ হন এই নায়িকা। এরপরই পপি উধাও হয়ে যান। গুঞ্জন আছে, বিয়ে করে সংসারী হয়েছেন পপি। তার একটি পুত্রসন্তানও হয়েছে। 

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

সর্বশেষ