শনিবার   ২২ জুন ২০২৪ || ৭ আষাঢ় ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত : ১১:১৭, ৩০ মে ২০২৪

আপডেট: ১১:৫০, ৩০ মে ২০২৪

জয়পুরহাটে বেকারিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

জয়পুরহাটে বেকারিতে ভোক্তা অধিকারের অভিযান, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
সংগৃহীত

র‌্যাবের সহযোগিতায় তিনটি বেকারিতে অস্বাস্থ্যকর ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল ব্যবহারের অভিযোগে বুধবার অভিযান চালিয়েছে জয়পুরহাট ভোক্তা অধিকার  সংরক্ষণ অধিদপ্তর ।

এ সময় তিনটি প্রতিষ্ঠানের পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা ও জব্দকৃত কেমিক্যাল ধ্বংস করা হয়েছে । বুধবার (২৯ মে) সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত জয়পুরহাট  পৌর এলাকার কাজল বিস্কুট ফ্যাক্টরী, জনতা বেকারি ও মানিক বেকারিতে জয়পুরহাট  র‌্যাব-৫ এর সহযোগিতায় অভিযান চালায় জয়পুরহাট  ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

জয়পুরহাট ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মেহেদী হাসান বলেন, সকাল ৯ টার দিকে জয়পুরহাট সদরের জামালগঞ্জ সড়কের কিনাপাড়া এলাকায় কাজী মৌওদুদ আহসান সেলিমের কাজল বিস্কুট ফ্যাক্টরিতে জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ সিপিসি-৩ কোম্পানি অধিনায়ক সিনিয়র এএসপি সঞ্জয় কুমার সরকার ও সদস্যদের সহযোগিতায় কারখানার ভিতরে অভিযান চালানো হয়। এসময় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য সামগ্রী তৈরী ও ক্ষতিকারক কেমিক্যাল ব্যবহারের অ়ভিযোগে বিশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।  সেই সাথে জব্দকৃত ক্ষতিকারক কেমিক্যাল গুলো ধ্বংস করা হয়েছে। এরপর একই অপরাধে পৌর এলাকার বৈরাগির মোড়ে জনতা বেকারিকে বিশ হাজার  ও মানিক বেকারিকে দশ হাজার সহ মোট পঞ্চাশ হাজার টাকা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে জরিমানা করা হয় ।

জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ সিপিসি-৩ কোম্পানি কমান্ডার সিনিয়র এএসপি সঞ্জয় কুমার সরকার বলেন, জয়পুরহাট পৌরসভাধীন কয়েকটি বেকারিতে অভিযান চালিয়ে অস্বাস্থ্যকর, নোংরা পরিবেশে বেকারি পণ্য তৈরি, পোড়া তেল, কেমিক্যালের রং ও কৃত্তিম ফ্লেভার ব্যবহার করার অপরাধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সহকারি পরিচালককে সাথে নিয়ে তিনটি প্রতিষ্ঠানে অ়ভিযান চালানো হয়। এসময় তিনটি প্রতিষ্ঠানকে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। জব্দকৃত কেমিক্যাল ধ্বংস করা হয়েছে।  এ ধরনের অ়ভিযান অভ্যাহত থাকবে বলে জানান, জয়পুরহাট ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক মেহেদী হাসান।

সর্বশেষ

সর্বশেষ