মঙ্গলবার   ০৫ মার্চ ২০২৪ || ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রকাশিত: ১০:২২, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

পি কে হালদারকে দেশে আনার বিষয়ে যা জানাল দুদক

পি কে হালদারকে দেশে আনার বিষয়ে যা জানাল দুদক
সংগৃহীত

গ্লোবাল ইসলামি (সাবেক এনআরবি গ্লোবাল) ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদারের বিচার শেষ হলে ভারত থেকে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. খুরশীদ আলম খান রোববার এ তথ্য গণমাধ্যমে জানিয়েছেন।

মো. খুরশীদ আলম খান বলেন, অর্থ পাচারের মূলহোতা পিকে হালদারের বিরুদ্ধে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিশেষ জজ আদালতে একটি মামলায় বিচার প্রায় শেষ পর্যায়ে। সেখানে বিচার শেষ হলে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে দুদক সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাবে। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে খুবই সচেতন ‍দুদক।

এদিকে অর্থপাচারের মামলায় চার বছরের সাজা বাতিল চেয়ে রোববার হাইকোর্টে আপিল করেছেন পি কে হালদারের বান্ধবী অনিন্দিতা মৃধা ও তার বাবা সুকুমার মৃধা।

গত বছরের ৮ অক্টোবর আদালত পি কে হালদারকে দুই মামলায় ২২ বছরের কারাদণ্ড দেন। এছাড়া অপর ১৩ আসামিকে দুই মামলায় তিন ও চার বছর করে মোট সাত বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এদের মধ্যে অবন্তিকা বড়াল, শংখ বেপারী, সুকুমার মৃধা ও অনিন্দিতা মৃধা কারাগারে রয়েছেন।

অন্য পলাতক আসামিরা হলেন- পিকে হালদারের মা লিলাবতী হালদার, ভাই প্রিতিশ কুমার হালদার, সহযোগী অমিতাভ অধিকারী, পূর্ণিমা রানী হালদার, উত্তম কুমার মিস্ত্রি, রাজিব সোম, সুব্রত দাস, অনঙ্গ মোহন রায় ও স্বপন কুমার মিস্ত্রি।

সূত্র: ডেইলি-বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়