মঙ্গলবার   ২৮ মে ২০২৪ || ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জাগ্রত জয়পুরহাট

প্রকাশিত: ১৭:৪৮, ২১ এপ্রিল ২০২৪

লাইভ খবর পড়ার সময় গরমে জ্ঞান হারালেন সংবাদ পাঠিকা

লাইভ খবর পড়ার সময় গরমে জ্ঞান হারালেন সংবাদ পাঠিকা
সংগৃহীত

ভারতে চলছে তীব্র তাপপ্রবাহ। প্রচণ্ড গরমে নাজেহাল দেশটির সাধারণ মানুষ। পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ এলাকায় জারি করা হয়েছে তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা। এদিকে তীব্র গরমে লাইভ সংবাদ পাঠ করার সময় জ্ঞান হারিয়েছেন কলকাতার এক টিভি সংবাদ পাঠিকা।

সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কলকাতা দূরদর্শনের সংবাদ উপস্থাপক লোপামুদ্রা সিনহা খবর পড়ার সময় অজ্ঞান হয়ে যান। তিনি দীর্ঘদিন দূরদর্শনে সংবাদ পাঠ করছেন।

এদিকে শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করে নিজের অসুস্থআর কথা জানান লোপামুদ্রা নিজেই।

ওই ভিডিও থেকে জানা যায়, গত ১৮ এপ্রিল সকালে লাইভ খবর পড়ার সময় গরমে অসুস্থবোধ করেন। লাইভ নিউজ চলার সময় তার রক্তচাপ অনেক বেশি কমে যায় এবং অজ্ঞান হয়ে যান।

লোপামুদ্রা জানান, সেদিন খবর পড়ার সময় বেশকিছুক্ষণ ধরেই আমার শরীর খারাপ লাগছিল, মনে হচ্ছিল একটু পানি পান করলে ঠিক হয়ে যাবে। আমি কখনো পানি নিয়ে সংবাদ পড়তে বসি না। সেটা ১০ মিনিটের নিউজ হোক বা আধ ঘণ্টার, কখনো প্রয়োজন পড়েনি। খারাপ লাগায় ফ্লোর ম্যানেজারকে ইশারা করে পানির বোতল চাই। কিন্তু কাল সেই সময় জেনারেল স্টোরি যাচ্ছিল, কোনো বাইট চলছিল না। তাই আমি পানি খেতে পারছিলাম না। অবশেষে একটা বাইট আসায় পানি খাই।

তিনি আরো বলেন, আমার মনে হয়েছিল বাকি চারটি নিউজ স্টোরি আমি শেষ করতে পারব। দুটো কোনোরকমে কমপ্লিট করি, তিন নম্বরটা হিট ওয়েভের ওপর স্টোরি ছিল। সেটা পড়ার সময়ই আমার আস্তে আস্তে কথাটা জড়িয়ে যাচ্ছিল। আমি ভেবেছিলাম আমি শেষ করতে পারব, নিজেকে ঠিক রাখার চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু না… অসুস্থতা তো বলে কয়ে আসে না। ওই স্টোরিটার সময় আমি আর দেখতেই পাচ্ছিলাম না। টেলিপ্রমটারটা আবছা হতে হতে শেষে আমি ব্ল্যাকআউট হয়ে যাই...।

ওই সংবাদ পাঠিকা জানান, টিভির নিউজ ফ্লোর শীততাপ নিয়ন্ত্রিত হলেও ওইদিন সেটি কাজ করছিল না। ফলে ফ্লোর মারাত্মক গরম হয়ে পড়েছিল।

সূত্র: ডেইলি বাংলাদেশ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়